মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

নামজারি প্রক্রিয়া

পার্বত্য জেলার অর্ন্তভূক্ত নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় নামজারি প্রক্রিয়া সমতলের জেলার তুলনায় আলাদা৤ক্রয় বিক্রয় এবং উত্তরাধিকার সূত্রে নামজারি প্রক্রিয়া নিচে বর্ণিত হল৤

১.০ ক্রয় বিক্রয় সূত্রে নামজারি

১.১ ক্রেতা বিক্রেতা উভয়কে পার্বত্য জেলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে৤ এজন্য জাতীয় পরিচয় পত্র, ইউপি চেয়ারম্যান ও মৌজা হেডম্যান ইস্যুকৃত নাগরিকত্ব সনদ জন্ম নিবন্ধন সনদ এবং বোমাং সার্কেল চীপ ইস্যুকৃত স্থায়ী বাসিন্দা সনদ উভয়কে দাখিল করতে হবে৤বিক্রেতার নামে হালনাগাত জমাবন্দি দাখিল করতে হবে৤

১.২ ক্রেতা বিক্রেতা উভয়ের কাগজ পত্র দেখে এবং শুনানি করে সুষ্ঠ হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জমি বিক্রয়ের অঙ্গীকার নামা দলিল রেজিষ্ট্রি করে দিবেন৤

১.৩ বিক্রেতা জমি ক্রয়ের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে জেলা প্রশাসক বরাবরে আবেদন করবেন৤আবেদনের সাথে অঙ্গীকার নামা দলিল,হালনাগাত জমাবন্দি, ক্রেতা বিক্রেতা উভয়ের ছবি,স্থায়ী বাসিন্দার প্রমান পত্র এবং স্থানীয় ঋণ দান প্রতিষ্ঠান কতৃক বিক্রেতার বরাবরে ইস্যুকৃত অনাপত্তি পত্র দাখিল করতে হবে৤

১.৪ নামজারি মামলা রুজু হবে এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার সার্ভেয়ার ও হেডম্যানকে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দিতে আদেশ দিবেন৤

১.৫ সার্ভেয়ার স্কেচম্যাপসহ নির্ধারিত ফরমে প্রতিবেদন দিবেন৤ হেডম্যান প্রতিবেদনে অনাপত্তি থাকতে হবে৤

১.৬ ক্রেতা বিক্রেতা উভয়কে নোটিশ প্রদান পূর্বক শুনানীতে অংশতগ্রহন করতে বলা হবে৤

১.৭ শুনানীক্রমে সন্তুষ্ট হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেলা প্রশাসক বরাবরে জমি বিক্রেতার সুপারিশ সহ নতি প্রেরণ করবেন৤

১.৮ জেলা প্রশাসক মহোদয় বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের অনুমোদনের জন্য নতি প্রেরণ করবেন৤

১.৯ জেলা পরিষদের অনুমোদন পাওয়া গেলে নতি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট পাঠানো হবে৤

১.১০ ক্রেতা বিক্রেতা উভয়কে রেজিস্ট্রি দলিল সমাপনের জন্য আবেদন করবেন উভয় পক্ষকে শুনানীক্রমে সন্তুষ্ট হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজিষ্ট্রি দলিল সম্পাদন করবেন৤

১.১১ জমাবন্দি সংশোধনের জন্য নথি রের্কড রুম বান্দরবান পার্বত্য জেলায় প্রেরণ করা হবে৤

১.১২ নথি ফেরত পাওয়া গেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সংশ্লিষ্ট মৌজার হেডম্যানকে তৌজি সংশোধনের আদেশ দিবেন৤

২.০ উত্তরাধিকার সূত্রে নামজারিঃ

২.১ মৃত ব্যক্তির উত্তরাধিকারীগণ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে জেলা প্রশাসক বরাবরে উত্তরাধিকার সনদ প্রাপ্তির জন্য আবেদন করবেন৤আবেদনের সাথে ইউপি চেয়ারম্যান ও হেডম্যান ইস্যুকৃত উত্তরাধিকার সনদ, মৃত ব্যক্তির মৃত্যু নিবন্ধন সনদ এবং সকল ওয়ারিশের ছবি, জন্ম নিবন্ধন সনদ, ইউপি চেয়ারম্যান ইস্যুকৃত নাগরিকত্ব সনদ, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র দাখিল করতে হবে৤

২.২ কাগজপত্র দৃষ্টে সন্তুষ্ট হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তরাধিকার মামলা রুজু করবেন৤উত্তরাধিকারীদের নোটিশ গ্রহন পূর্বক শুনানী করবেন৤

২.৩ শুনানী পূর্বক সন্তুষ্ট হলে সনদ ইস্যুর সুপারিশ সহ নথি জেলা প্রশাসক বরাবরে প্রেরণ করবেন৤

২.৪ জেলা প্রশাসক সন্তুষ্ট হলে উত্তরাধিকার সনদ ইস্যু করবেন৤

২.৫ ওয়ারিশগণ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে জেলা প্রশাসক বরাবরে ওয়ারিমসূত্রে নামজারির আবেদন৤করবেন আবেদনের সাথে জেলা্ প্রশাসক ইস্যুকৃত উত্তরাধিকার সনদ, সকল ওয়ারিশের জন্মনিবন্ধন, জাতীয় পরিচয় পত্র, নাগিরিকত্ব সনদ, এবং মৃত ব্যক্তির নামে হালনাগাত জমাবন্দি দাখিল করতে হবে৤

২.৬ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নামজারি মামলা রুজু পুর্বক  সার্ভেয়ার ও মৌজা হেডম্যানকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বলবেন৤

২.৭ সার্ভেয়ার স্কেচম্যাপ সহ নির্ধারিত ফরমে প্রতিবেদন দিবেন৤হেডম্যান প্রতিবেদনে অনাপত্তি থাকতে হবে৤

২.৮ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সকল ওয়ারিশের উপস্থিতিতে শুনানীক্রমে সন্তুষ্ট হলে নামজারির সুপারিশ সহ নথি জেলা প্রশাসক বরাবরে প্রেরণ করবেন৤

২.৯ জেলা প্রশাসকের অনুমোদন পাওয়া গেলে জমাবন্দি এবং তৌজি সংশোধন করা হয়৤